সাংবাদিক হত্যায় থমথমে কোম্পানীগঞ্জ : ১৪৪ ধারা
Published : Tuesday, 23 February, 2021 at 12:00 AM, Update: 22.02.2021 10:07:42 PM
দিনকাল রিপোর্ট
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত সাংবাদিকের মৃত্যু এবং একই স্থানে আওয়ামী লীগের মির্জা কাদের ও বাদলের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির ঘোষণাকে ঘিরে নোয়াখালী বসুরহাট পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন। এই সকল ঘটনায় গতকাল সোমবার বসুরহাট পৌর এলাকাসহ সমগ্র কোম্পানীগঞ্জে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিকে ঘিরে সম্ভাব্য পরিস্থিতি মোকাবিলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিয়েছে। ১৪৪ ধারা জারির পর রবিবার রাত থেকে বসুরহাট বাজারসহ কোম্পানীগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে জেলা সদর থেকে আরও অতিরিক্ত পুলিশ পাঠানো হয়েছে।
কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক মীর স্বাক্ষরিত এক আদেশে জানানো হয়, গতকাল সোমবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পৌরসভার সর্বত্র ১৪৪ ধারার আওতায় রয়েছে  এ আদেশ সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। এ সময় সব ধরনের সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এদিকে সকাল থেকে বসুরহাটের বেশিরভাগ দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। ব্যবসায়ীরা জানান, তারা জান-মালের নিরাপত্তার স্বার্থে দোকানপাট বন্ধ রেখেছেন। জেলা সদর থেকে বিভিন্ন রুটে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।
সরেজমিনে দেখা গেছে, বসুরহাট পৌর এলাকার বিভিন্ন সড়কে  গাছের গুঁড়ি, ইট পাটকেল দিয়ে বিভিন্ন প্রবেশ পথ আটকে রাখা হয়েছে।
সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার বিচারের দাবিতে গতকাল সোমবার বেলা আড়াইটায় বসুরহাট পৌরসভার রূপালী চত্বরে শোক সভা আহ্বান করেছে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। এর আগে একই স্থানে বিকেল ৩টায় সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়ে রাখেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল।
শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতাদেরকে নিয়ে আবদুল কাদের মির্জার মিথ্যাচারের প্রতিবাদে গতকাল সোমবারের এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বাদল।
এ ব্যাপারে জেলা পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, প্রশাসন বসুরহাট পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে রেখেছেন। তাই কাউকে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করতে দেয়া হবে না। কোথাও সরকারি আদেশ অমান্য করে সভা-সমাবেশ করার চেষ্টা হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা নেবে।
প্রসঙ্গত, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের কাদের মির্জা ও বাদল সমর্থকদের দু গ্রুপের সংঘর্ষের খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে শুক্রবার গুলিবিদ্ধ হওয়া সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির মৃত্যুবরণ করেছেন। শনিবার রাত পৌনে ১১টায় ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। রবিবার তার দাফন সম্পন্ন হয়।











প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ডিজিটাল অ্যাক্ট একটা জুলুম, মুখ ও লেখা বন্ধের আইন। আপনি কি তাই মনে করেন
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা