একদিনে আক্রান্ত হাজার ছাড়ালো
Published : Tuesday, 12 May, 2020 at 12:00 AM, Update: 11.05.2020 9:15:13 PM
একদিনে আক্রান্ত হাজার ছাড়ালোদিনকাল রিপোর্ট
বাংলাদেশে মহামারি করোনার সংক্রমণ ক্রমাগত বাড়ছেই। গেল ২৪ ঘন্টায় নতুন করে দেশে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ১০৩৪ জনের শরীরে। এ নিয়ে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৫ হাজার ৬৯১ জনে। গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন আরও ১১ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৩৯ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৫২ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলেন দুই হাজার ৯০২ জন। গতকাল সোমবার বেলা আড়াইটায় কোভিড-১৯ সম্পর্কিত সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিন অনলাইনে প্রচারিত হয়। বুলেটিনে ভিডিও কনফারেন্সে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।
তিনি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় মারা যাওয়া ১১ জনের মধ্যে পাঁচজন পুরুষ ও ছয়জন নারী। তাদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৭১-৮০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে একজন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে চার জন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে দুজন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে দুজন এবং ২১-৩০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। নাসিমা সুলতানা জানান, দেশে করোনায় সুস্থতার হার ১৮ দশমিক ৫২ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৩ শতাংশ। স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে আট জন, চট্টগ্রাম বিভাগে দু’জন এবং রংপুর বিভাগে একজন রয়েছেন। এখন পর্যন্ত ঢাকা শহর ও ঢাকা বিভাগে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি।নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় সাত হাজার ২৬৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ৩৭টি ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়েছে সাত হাজার ২০৮টি নমুনা। এ পর্যন্ত মোট এক লাখ ২৯ হাজার ৮৬৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।   তিনি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ১৮৩ জনকে, ছাড়া পেয়েছেন ৬২ জন। এখন দুই হাজার ৩৬ জন আইসোলেশনে আছেন। এ পর্যন্ত আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন এক হাজার ১৭৬ জন। মোট আইসোলেশন শয্যা আছে আট হাজার ৬৩৪টি। আরও শয্যা  তৈরির কাজ চলছে। ঢাকা শহরের বাইরের হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ শয্যা আছে ৩২৯টি, ডায়ালাইসিস ইউনিট আছে ১০২টি।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে দুই হাজার ৩৬০ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়া পেয়েছেন দুই হাজার ৪৩৯ জন। এ পর্যন্ত দুই লাখ ১২ হাজার ৯৮৩ জনকে কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে। এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন থেকে মোট ছাড়া পেয়েছেন এক লাখ ৭৬ হাজার ৬৪০ জন।




তিনি বলেন, ‘নতুন আরও একটি করোনা পরীক্ষার ল্যাব সংযোজন করা হয়েছে। নোয়াখালীর আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ ল্যাব করোনা শনাক্তের কাজে যুক্ত হয়েছে। আরও কয়েকটি ল্যাব সংযোজনের কাজ প্রক্রিয়াধীন। দুই-চার দিনের মধ্যে আরও ল্যাব সংযোজন করতে পারবো।’
চীনের উহান শহরে গত ডিসেম্বরে প্রথম শনাক্ত হলেও এখন গোটা বিশ্বই করোনা ভাইরাসের কবলে। মারাত্মকভাবে ভুগছে ইউরোপ-আমেরিকা-এশিয়াসহ বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চল। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪২ লাখ। মৃতের সংখ্যা দুই লাখ ৮৪ হাজার প্রায়। তবে প্রায় ১৫ লাখ রোগী ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন। গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। দিন গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এ সংখ্যা। লম্বা হচ্ছে মৃত্যুর মিছিলও। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সারাদেশে চলছে ছুটি। বন্ধ বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ সব ধরনের গণপরিবহন। যদিও ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-গাজীপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় পোশাক কারখানা খুলে দেয়া হয়েছে। এছাড়া গত রোববার (১০ মে) থেকে শর্তসাপেক্ষে খুলে দেয়া হয়েছে দোকানপাট ও শপিংমলও।






প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25105 জন