দেশজুড়ে বেড়েছে ছিনতাই
Published : Monday, 11 May, 2020 at 12:00 AM, Update: 10.05.2020 9:52:46 PM
দেশজুড়ে বেড়েছে ছিনতাইদিনকাল রিপোর্ট
করোনায় পুরো দেশ যখন স্থবির হয়ে পড়েছে সেখানে থেমে নেই ছিনতাই। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে ঘটছে ছিনতাই। লকডাউনে কড়াকড়ির মধ্যেও এসব ঘটনায় সাধারণ মানুষের মধ্যে নতুন করে আরেক ভীতির জন্ম দিয়েছে। ছিনতাইয়ের এসব ঘটনায় ক্ষমতাসীন দলের লোকদেরও জড়িত থাকার প্রমাণ মিলছে।  
রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে দিনেদুপুরে এক ব্যবসায়ীকে রড দিয়ে পিটিয়ে ৫৫ লাখ ৬৯ হাজার টাকা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা।  গতকাল রবিবার বেলা ১১টার দিকে যাত্রাবাড়ীর জনপথ মোড়ে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিকেলে যাত্রাবাড়ী থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। ছিনতাইয়ের শিকার ব্যবসায়ীর নাম সাইফুল ইসলাম সবুজ। তিনি ডাচবাংলা ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং এজেন্সি মারফুস এন্টারপ্রাইজ ও এইচ-২৪ এন্টারপ্রাইজের মালিক।
এই ব্যবসায়ী জানান, তিনি যাত্রাবাড়ীর কাজলা বউবাজারে তাদের অফিস থেকে দুটি ব্যাগে করে ব্যবসার ৫৫ লাখ ৬৯ হাজার টাকা নিয়ে বের হন। তার সাথে ছিলেন বড় ভাই সাইফুল ইসলাম। মোটরসাইকেলযোগে তারা মতিঝিল ফরেন এক্সচেঞ্জ যাচ্ছিলেন। পথে যাত্রাবাড়ী জনপদ মোড়ে (হানিফ ফাইওভারের নিচে) ছিনতাইকারীদের মোটরসাইকেল তাদের চলন্ত মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। ‘এতে আমরা ছিটকে পড়ে যাই। একপর্যায়ে দুই মোটরসাইকেলে থাকা চারজন ছিনতাইকারী আমাদের রড দিয়ে এলোপাতাড়ি মারতে থাকে। পরে আমাদের কাছে থাকা টাকাভর্তি ব্যাগ দুটি নিয়ে তারা দ্রুত পালিয়ে যায়।’- বলছিলেন সাইফুল ইসলাম সবুজ। পালিয়ে যাওয়ার সময় ছিনতাইকারীরা কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে বলে জানান তিনি। যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ছিনতাইকারীদের ধরার জন্য পুলিশের টিম কাজ করছে। ঘটনাস্থলে সিসিটিভি ফুটেজসহ অন্যান্য সবকিছুই খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গতকাল একই ঘটনা ঘটেছে পাবনায়। আর এতে ধরা পড়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। প্রকাশ্য দিবালোকে এক ব্যবসায়ীর নগদ প্রায় ছয় লাখ টাকা ও আরও সাত লাখ টাকার চেক ছিনতাই করে পালানোর সময় জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি রুহুল আমিন ও তার তিন সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুরে জেলার সাঁথিয়া উপজেলার ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের বৃহস্পতিপুর বাজার থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি রুহুল আমিন (২৭), তার অনুসারী রানা হক (২৭) এবং শিপন হোসেন (২৫)। রুহুল আমিন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম।
আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রবিবার দুপুরে সাঁথিয়া এলাকার ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম নগদ পাঁচ লাখ পঁচাশি হাজার আটশ টাকা ও সাত লক্ষ টাকার চেক অগ্রণী ব্যাংক আতাইকুলা শাখায় জমা দিতে যাচ্ছিলেন। পথে বৃহস্পতিপুর বাজার এলাকায় ভিড়ের মধ্যে রুহুল আমিন ও তার সহযোগীরা ছুরি দিয়ে আঘাত করে তার নিকট থেকে টাকা ও চেক ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় ব্যবসায়ী সিরাজুলের চিৎকারে স্থানীয়রা রুহুল ও তার তিন সঙ্গীকে আটক করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ওসি জানান, আটক যুবকদের কাছ থেকে ছিনতাই করা নগদ চার লাখ বিশ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে আতাইকুলা থানায় ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী সিরাজুল বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।
এর আগে গত মঙ্গলবার পাবনায় ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট আউটলেটের ১১ লাখ টাকা ছিনতাই হয়। সদর উপজেলার টেবুনিয়া বাজারের অদূরে মজিদপুর নামক স্থানে ইসলামী ব্যাংক টেবুনিয়া এজেন্ট আউটলেটের ১১ লাখ টাকা ছিনতাই হয়েছে। বুধবার রাতে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসিম আহম্মেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার ইসলামী ব্যাংক টেবুনিয়া এজেন্ট আউটলেট শাখার ১১ লাখ টাকা নিয়ে পাবনা ইসলামী ব্যাংকে জমা দিতে যাওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে।  ইসলামী ব্যাংক টেবুনিয়া এজেন্ট ব্যাংক আউটলেট শাখার কর্মরত ঈশ্বরদী অরোনকোলা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে মোখলেছুর রহমান (৩৮) ও পাবনা সদরের বড় দিকশাইল গ্রামের আবুল কালামের ছেলে মেহেদী হাসান (২০) মোটরসাইকেল যোগে কালো ব্যাগে ১১ লাখ টাকা নিয়ে পাবনা ইসলামী ব্যাংকে জমা দিতে যাওয়ার সময় মজিদপুর শফিক ফিলিং স্টেশনের নিকট ফাকা জায়গায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে ২টি মোটারসাইকেলে ৬ জন সন্ত্রাসী মোখলেছুর রহমানদের মোটরসাইকেল ঘিরে ফেলে। এ সময় চাপাতি দিয়ে মোখলেছকে মাথায় আঘাত করে এবং মারপিট করে ১১ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে সন্ত্রাসীরা টাকার ব্যাগ ও মোটরসাইকেলের চাবি নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।  এ ব্যাপারে পাবনা সদর থানায় ইসলামী ব্যাংক টেবুনিয়া এজেন্ট আউটলেট শাখার প্রোপাইটর মাহবুবুল আলম অভিযোগ করে।  পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নাছিম আহমেদ জানান, এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে, তদন্ত চলছে। একই জেলার ঈশ্বরদীতে অস্ত্র ঠেকিয়ে দিন-দুপুরে সাড়ে ১২ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে (৫ মে) সকাল পৌনে ১১টায়। ঈশ্বরদী-কুষ্টিয়া সড়কের জয়নগর এলাকার ওয়াবদা গেটের সন্নিকটে এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। বিআরবি’র রূপপুর সিএনজি পাম্পের ইনচার্জ জাকির হোসেন জানান, ৫-৬ দিনের জমাকৃত ১২ লাখ ৫৭ হাজার টাকা ব্যাংকে জমা দিতে যাওয়ার পথে ছিনতাইকারীরা পথ আগলে অস্ত্রের মুখে টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পাম্পের জমাকৃত টাকা মোটরসাইকেল যোগে  ব্যাংকে জমা দিতে যাওয়ার সময় জয়নগর ওয়াবদা গেটের কাছে মোটরসাইকেল আরোহী দুইজন ছিনতারকারী তার পথ আগলে থামিয়ে দেয়। এ সময় ছিনতাইকারীরা একটি পিস্তল ধরে টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়।
ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ বাহাউদ্দিন ফারুকী জানান, ফোন পেয়েই আমি এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরাজ কবীর ঘটনাস্থলে আসি। ছিনতাইকারী চিহিৃত করার জন্য ওই এলাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ এখনও অব্যাহত রয়েছে।
গত ৫ মে বগুড়ায় দিনের বেলা সোনালী ব্যাংকের ম্যানেজার ও সিনিয়র অফিসারকে ছুরিকাঘাত করে নগদ টাকা ও ভল্টের চাবি ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনার পর ব্যাংকে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের শাজাহানপুর থানার জোড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত মতিউর রহমান (৫০) সোনালী ব্যাংক নন্দীগ্রাম শাখার ম্যানেজার এবং অপর আহত আতাউর রহমান (৪৫) একই শাখার সিনিয়র অফিসার। তাদেরকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মতিউর রহমান ও আতাউর রহমান বগুড়া শহর থেকে মোটরসাইকেল যোগে তাদের কর্মস্থল নন্দীগ্রাম যাচ্ছিলেন। মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে জোড়া নামক স্থানে দুর্বৃত্তরা পথরোধ করে। এরপর তাদেরকে উপুর্যপরি ছুরিকাঘাত করে ভল্টের চাবি, নগদ টাকা, মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। প্রকাশ্যে এ ঘটনা ঘটলেও মহাসড়কে চলাচলকারী যানবাহনের লোকজন তাদেরকে উদ্ধারে এগিয়ে আসেননি। দুর্বৃত্তরা চলে গেলে আশপাশের লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। এ দিকে ব্যাংকের ভল্টের চাবি খোয়া যাওয়ার খবর পেয়ে সোনালী ব্যাংক নন্দীগ্রাম শাখায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়। ব্যাংকে যাতায়াতকারী লোকজনকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ম্যানেজার মতিউর রহমান বলেন, ‘দুইজনের কাছ থেকে নগদ প্রায় ১০ হাজার টাকা,ভল্টের চাবিসহ ব্যাগ ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছে।’ বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী বলেন, ‘ছুরিকাহত দুজনের অবস্থা উন্নতির দিকে। ঘটনার পর পরই পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।’ ৪ মে ফরিদপুরের সালথা উপজেলার আটঘড় ইউনিয়নের জয়কালী বাজারে একটি দোকানে সিনেমা স্টাইলে হামলা ও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ঘটনার দিন সকাল সাড়ে ৭টায় জয়কালী বাজারে গাড়ি ও মোটরসাইকেলে করে ২০ থেকে ২৫ জনের একটি দল বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী সুজিত রায়কে (৩৫) জখম করে তিন লাখ টাকা ছিনতাই করে বলে সুজিত রায় অভিযোগ করেন।  এ সময় সুজিত রায় চিৎকার করলে সবাই পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় সুজিত রায় সালথা থানায় মোতালেব মেম্বার ও তার ছেলে রাব্বির নামসহ ২৫ জনের ব্যাপারে অভিযোগ জমা দিয়েছেন।     সুজিত রায় বলেন, ‘সকাল সাড়ে ৭টায় জয়কালী বাজারে আমার কাপড়ের দোকানে মোতালেব মে¤॥^ার ও তাঁর ছেলে রাব্বিসহ ২০ থেকে ২৫ জনের একটি দল হামলা চালায়। এ সময় আমি পাশের একটি সেলুনে দাড়ি শেভ করছিলাম। তারা সেখানে গিয়ে আমার পকেটে থাকা তিন লাখ টাকা ছিনতাই ও আমাকে মারধর করে জখম করে।’ এ ব্যাপারে সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহম্মদ জিন্নাহ আলী বলেন, ‘ঘটনা জানার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। সুজিতের পক্ষ থেকে থানায় একটি এজাহার দায়ের করা হয়েছে। এখন তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ গত রোববার দুপুরে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা বামনডাঙ্গা জনতা ব্যাংক শাখার সামনে প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা তুলতে আসা এক নারীকে ত্রানের প্রলোভন দেখায় মারুফ নামে এক যুবক। তিনি ত্রাণ নিতে অস্বীকৃতি জানালে ত্রাণ নিতে জোর করতে থাকেন। এসময় আরেক প্রতিবন্ধী বৃদ্ধের কাছে থেকে টাকাও ছিনিয়ে নেয় সে। ওই দুই বৃদ্ধের সাথে জোরাজুরি দেখে এগিয়ে আসেন স্থানীয়রা। পরে ত্রাণের কথা বলে আড়ালে ডেকে টাকা হাতিয়ে নেয়ার কথা শুনে ওই প্রতারককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।
এর আগে গত ২৬ এপ্রিল একই কায়দায় বয়ষ্কভাতার টাকা তুলতে আসা দুই বৃদ্ধার টাকা ছিনিয়ে পালিয়ে গিয়েছিল ওই প্রতারক। গত ৩০ এপ্রিল দুপুররে রাজশাহীর দরগাপাড়াস্থ নিবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মাহাফুজুর রহমান এর স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসী (৬২) ব্যাংক থেকে টাকা উঠিয়ে রিকশা যোগে যাওয়ার সময় ঘটনাস্থল রাজপাড়া থানাধীন সিপাইপাড়া মাদারবক্স আইডিয়াল স্কুলের সামনে পৌঁছলে মোটরসাইকেল আরোহী ০৩ জন ছিনতাইকারী রিকশা থামিয়ে উক্ত জান্নাতুল ফেরদৌসী (৬২) কে মারধর করে তার কাছে থাকা নগদ টাকা, ভ্যানিটিব্যাগ, কাগজপত্র ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়।
















প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25100 জন