নিউমার্কেট খোলার সিদ্ধান্ত আজ : খুলছে না বায়তুল মোকাররম মার্কেট
Published : Saturday, 9 May, 2020 at 12:00 AM
দিনকাল রিপোর্ট
অধিকাংশ ব্যবসায়ী দোকান খোলার পে অবস্থান নিলেও ঢাকা নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি। আজ শনিবার (৯ মে) সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় মার্কেট খোলার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। অপরদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মালিকানাধীন গুলশান ১ ও গুলশান ২ এর দুটি মার্কেট আগামী রবিবার (১০ মে) খুলছে। কর্তৃপ বলছে খোলার বিষয়ে প্রায় শতভাগ প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই দুটি মার্কেট খুলে দেওয়া হবে। অন্যদিকে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদ মার্কেট ঈদের সময় না খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ঢাকা নিউমার্কেট ও গুলশান ডিএনসিসি ও বায়তুল মোকাররম মসজিদ মার্কেটের ব্যবসায়ী সমিতির নেতাদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে। জানা গেছে, ঢাকা নিউমার্কেটের অধিকাংশ ব্যবসায়ী আগামী ২/৩দিন পরিস্থিতি পর্যবেণ করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পে মত দিলেও, কিছু ব্যবসায়ী রয়েছেন তারা এই মুহূর্তেই দোকান খুলতে চান। এ বিষয়ে আগামী ৯ মে শনিবার পর্যন্ত অপো করতে চান সেখানকার ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা। তারা বলেছেন, যেহেতু আরও দুইদিন সময় হাতে রয়েছে, আমরা পরিস্থিতি পর্যবেণ করছি।
জানতে চাইলে নিউমার্কেট দোকান মালিক সমিতির সভাপতি আশরাফ জানান, গণপরিবহন বন্ধ থাকলে রাজধানীর বিভিন্ন অঞ্চল থেকে খরিদদাররা আসবেন কীভাবে? পাশাপাশি প্রতিদিন যে হারে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে, এ অবস্থায় নতুন করে বাড়তি ঝুঁকি নেওয়া ঠিক হবে কিনা তা নিয়ে আমরা চিন্তা ভাবনা করছি। তিনি আরও বলেন, একজন দোকানি আক্রান্ত হলে এর দায়ভার কে নেবে? এসব কারণে ১০ তারিখ মার্কেট খোলা হবে কি হবে না- এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে আমরা ৯ মে পর্যন্ত পর্যবেণ করবো।




অপরদিকে গুলশান-১ ও ২ এর ডিএনসিসি মার্কেট খোলা না খোলার বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোহম্মদ আব্দুল হামিদ মিয়া জানান, মার্কেট দুটির মালিকানা সিটি করপোরেশনের। সেেেত্র মার্কেটের দোকান বরাদ্দ দেওয়া ও দোকানে ভাড়া আদায় করার মালিক সিটি করপোরেশন। তবে দোকান খোলার বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত সিটি করপোরেশন দেয় না বা দেবেও না। এ দুটি মার্কেট পরিচালিত হয় সেখানকার ব্যবসায়ী সমিতির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী। কাজেই রবিবার মার্কেট খুলবে কিনা তা ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন জানে না। এ বিষয়ে জানতে গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটের এক অংশের সভাপতি দীন মোহম্মদ জানান, গুলশান ডিএনসিসি মার্কেটের কাঁচাবাজার আগে থেকেই চলছে। সেখানে সরকারের নির্দেশনা মেনেই ব্যবসা করছি। তবে শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মোতাবেক সামাজিক দূরত্ব মানা সম্ভব হচ্ছে না। কাস্টমাররা বেশিভাগই তা মানতে চান না। হাতে গ্লাভস বা মুখে মাস্ক ব্যবহার করলেও তারা সামজিক দূরত্ব মানার নির্দেশনাটি মানছেন না। একজন ক্রেতা দোকানে ঢুকে পড়লে তাকে তো আর বের করে দেওয়া যায় না। গুলশান-১ এর ডিএনসিসি মার্কেটের অপর অংশের সাধারণ সম্পাদক মো. জয়নাল আবেদীন জানান, দোকান খোলার বিষয়ে মার্কেটের ব্যবসায়ীদের একটি অংশ চাইলেও অপর একটি অংশের কিছুটা আপত্তি রয়েছে। তবে আমরা সরকারের নির্দেশনা মানতে চাই। আমরা হয়তো সীমিত পরিসরে ১০ মে রবিবার থেকে মার্কেট খুলবো। আমরা ফোনে ফোনে প্রায় সবার মতামত নিয়েছি। তবে আমাদের সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সভা ডেকেছি শনিবার। ওই সভায় সবার মতামতের ভিত্তিতে মার্কেট খেলার েেত্র সরকারের নির্দেশনাগুলো কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করবো। আমরা মার্কেট খোলার বিষয়ে একমত হয়েছি বলেও জানান তিনি।
বায়তুল মোকাররম মার্কেটজয়নাল আবেদীন আরও জানান, আমরা হয়তো মার্কেটের সব গেট খুলবো না। নিচতলা ও দোতলা মিলিয়ে হয়তো আমরা সর্বোচ্চ পাঁচটি গেট খুলে দেবো। এসব গেট দিয়ে কাস্টমাররা সারিবদ্ধভাবে মার্কেটে প্রবেশ করবেন এবং বের হবেন। মূলগেটে আমরা হাত ধোয়ার পর্যাপ্ত ব্যবস্থাও করবো। এদিকে গুলশান-২ এর ডিএনসিসি মার্কেটের সভাপতি আবুল কাশেম জানিয়েছেন, আমরা আমাদের মার্কেট সরকারের নির্দেশনা মেনে আগামী ১০ মে, রবিবার থেকে খুলে দিচ্ছি। এ বিষয়ে আমাদের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। তিনি জানান, এ বিষয়ে আমাদের মার্কেটের ব্যবসায়ীদের মতামত নেওয়া হয়েছে দোকানিরা দোকান খোলার বিষয়ে একমত। এদিকে ঈদের আগে বায়তুল মোকাররম মসজিদ মার্কেট না খোলার সিদ্ধান্তটি বৃহস্পতিবার বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন ব্যবসায়ী গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক ডা. দিলীপ রায়। তিনি জানান, আমরা মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তারা জানিয়েছেন এ সময় কেউ ঝুঁকি নিয়ে দোকান খুলবেন না। আমরা সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি যে ঈদের আগে মার্কেট খুলবো না। বিষয়টি সব ব্যবসায়ীকে ইতিমধ্যে জানিয়েও দিয়েছি।






প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25123 জন