দেশে করোনায় মৃত্যু দেড়শ ছাড়ালো : আক্রান্ত ৬ হাজার
Published : Tuesday, 28 April, 2020 at 12:00 AM, Update: 28.04.2020 6:23:13 PM
দিনকাল রিপোর্ট
দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৭ জন। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ১৫২ জনে। এছাড়া এই সময়ের মধ্যে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৪৯৭ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত হলো ৫,৯১৩ জন।
গতকাল সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান প্রতিষ্ঠানটির অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।
তিনি জানান, মোট ৪ হাজার ১৯২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। এর মধ্যে ৩ হাজার ৮১২টি নমুনা পরীা করা হয়েছে।
ডা. নাসিমা আরও জানান, মৃতদের মধ্যে ৬ জন পুরুষ এবং এক জন নারী। ৫ জন ঢাকার ভেতরে এবং একজন সিলেট ও এক জন রাজশাহীতে। ৫ জনের বয়স ষাট বছরের বেশি। এক জনের বয়স ৪০ থেকে ৫১ বছরের মধ্যে এবং একজন শিশু যার বয়স ১০ বছরের নিচে।
এছাড়া সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৯ জন। এ নিয়ে মোট ১৩১ জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানান তিনি। এই চিকিৎসক জানান, এখনও পর্যন্ত ঢাকা শহর ও ঢাকা জেলাতেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক আক্রান্ত পাওয়া গেছে। এখনো পর্যন্ত ৬০টি জেলায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে।
যে চারটি জেলায় এখনও কোনো করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি পাওয়া যায়নি সেগুলো হলো- খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, সাতীরা ও নাটোর।
এর আগে নাটোরে যে একজন আক্রান্তের কথা বলে হলেও তিনি আসলে ঢাকার বাসিন্দা বলে জানানো হয়। ঢাকার মধ্যে সবচেয়ে বেশি যেসব এলাকায় সংক্রমণ ছড়িয়েছে সেগুলো হলোÑ যথাক্রমে রাজারবাগ, যাত্রাবাড়ী, লালবাগ, মোহাম্মদপুর, বংশাল, মহাখালী এবং মিটফোর্ডে একই সংখ্যক আক্রান্ত ব্যক্তি আছে। মিরপুর-১৪ এবং তেজগাঁও এলাকায় একই সংখ্যক আক্রান্ত ব্যক্তি আছে।
এছাড়া ওয়ারী, শাহবাগ, কাকরাইল এবং উত্তরায়ও একই সংখ্যক আক্রান্ত ব্যক্তি আছে। এসব এলাকাতেই এখন সর্বাধিক পরিমাণ আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছে।
দেশের যে ৪ জেলা এখনও করোনামুক্ত
ক্রমান্বয়ে দেশব্যাপী ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে ৬০ জেলাতেই সংক্রমণ ছড়িয়েছে এ ভাইরাস। এখন কেবল চার জেলা করোনা ভাইরাস মুক্ত রয়েছে। করোনামুক্ত জেলাগুলো হলোÑ খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি, সাতীরা ও নাটোর।
গতকাল সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।
তিনি বলেন, ‘আমাদের ৬০টি জেলা করোনায় আক্রান্ত। চারটি জেলায় এখনও কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি। তার মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটি করোনামুক্ত। খুলনা বিভাগের মধ্যে গতদিন আমি বলেছিলাম যে, ঝিনাইদহ ও সাতীরা বাদ আছে। তবে আজকে আমি বলব, ঝিনাইদহতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে। খুলনা বিভাগের শুধু সাতীরা বাকি আছে। আর রাজশাহী বিভাগে একটু সংশোধনী আছে। গতদিন আমরা বলেছিলাম যে, রাজশাহীর নাটোরে একজন আক্রান্ত। আসলে নাটোরে কোনো আক্রান্ত নেই। নাটোরে যে ব্যক্তির কথা বলেছিলাম, তিনি ঢাকার। স্থায়ী ঠিকানা নাটোর ছিল বলে নাটোর উল্লেখ করা হয়েছিল। নাটোর এখনও করোনামুক্ত।’




প্রসঙ্গত গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর চীনের উহান শহরে প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।
২৫ মার্চ প্রথমবারের মতো রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) জানায়, বাংলাদেশে সীমিত পরিসরে ‘কমিউনিটি ট্রান্সমিশন বা সামাজিকভাবে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হচ্ছে।’






প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25101 জন