করোনা পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ
Published : Tuesday, 28 April, 2020 at 12:00 AM, Update: 28.04.2020 6:23:35 PM
শিগগিরই ২ হাজার ডাক্তার ৬ হাজার নার্স নিয়োগ : প্রধানমন্ত্রী
দিনকাল রিপোর্ট
করোনা পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধআপাতত স্কুল-কলেজ-শিাপ্রতিষ্ঠান খুলছে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনা পরিস্থিতি থাকলে অন্তত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্ধ রাখার কথা বলেন তিনি। যদিও জীবনযাপনের জন্য কিছু েেত্র বিধিনিষেধ শিথিল করার ইংগিত দেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল সকালে গণভবন থেকে রাজশাহী বিভাগের আট জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্সে তিনি এসব কথা বলেন।
কিছু েেত্র বিধিনিষেধ তোলার আভাস দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেহেতু এখন কিছু কিছু ফসল উঠছে, এরপর ফসল লাগাতে হবে। কিছু কিছু জীবনযাপন আমাদের আস্তে আস্তে উন্মুক্ত করতে হবে। সেখানেও সবাই নিজেকে সুরতি রেখেই কাজ করবেন, সেটাই আমরা অনুরোধ করবো।
এর পরপরই শিাপ্রতিষ্ঠানের বিষয়ে নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়ে তিনি বলেন, স্কুল এখন আমরা খুলব না, শিাপ্রতিষ্ঠান একটাও খুলব না। সেটা আমরা কখন খুলব? অন্তত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই স্কুল কলেজ সবই বন্ধ থাকবে যদি না করোনা ভাইরাস তখনও অব্যাহত থাকে।
যখন এটা থামবে আমরা তখনই খুলব। এর আগে প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে পৃথক ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট, বরিশাল এবং ময়মনসিংহ বিভাগের ৪৮টি জেলার সঙ্গে মতবিনিময় করেন।
 ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি সংকট উত্তরণে বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজেরও ঘোষণা দেন।
শিগগিরই ২০০০ ডাক্তার, ৬ হাজার নার্স নিয়োগ : প্রধানমন্ত্রী
নতুন করে আরও দুই হাজার ডাক্তার ও ৬ হাজার নার্স নিয়োগ দেয়ো হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরই মধ্যে সেই প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এই চিকিৎসক ও নার্সদের করোনা চিকিৎসার জন্য বিশেষ প্রশিণ দেয়া হবে। করোনা চিকিৎসার জন্য প্রত্যেক জেলায় আইসিইউর (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) ব্যবস্থা করা হবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল সোমবার বগুড়া জেলা প্রশাসনের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন। তিনি রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময়র অংশ হিসেবে বগুড়ার সঙ্গে কথা বলেন।
স্বাস্থ্যসেবা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা স্বাস্থ্যসেবার দিকে বিশেষ দৃষ্টি দিচ্ছি। আমরা প্রত্যেক জেলাতেই ভালো হাসপাতালগুলোতে আইসিইউর ব্যবস্থা করব। পর্যায়ক্রমে সব জেলাতেই এটি করে দেব।




ডাক্তার-নার্স নিয়োগের কথা উল্লেখ করে সরকারপ্রধান বলেন, করোনার চিকিৎসা করতে আমরা পায় দুই হাজার ডাক্তার নতুন নিয়োগ দেব। ইতিমধ্যে বিসিএস পরীা দিয়ে যারা রয়ে গেছেন, (উত্তীর্ণ কিন্তু সুপারিশপ্রাপ্ত নয়) তাদের থেকে আমরা নিচ্ছি। ৬ হাজার নার্সও আমরা নিয়োগ দেব। প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। আমি নিজেই মিটিং করে এটি সব ঠিকঠাক করে দিয়েছি। এদের করোনার বিষয়ে বিশেষ প্রশিণ দেয়া হবে। বিদেশ থেকে লোক এনেও আমরা প্রশিণের ব্যবস্থা করাব। প্রশিণ নিয়ে তারা চিকিৎসাসেবা দেবে। পর্যায়ক্রমে ৬৪ জেলাতে এটি করা হবে। যাতে কোনো জায়গায় মানুষের চিকিৎসার অসুবিধা না হয়।
প্রসঙ্গত করোনা ভাইরাসে দেশে এ পর্যন্ত ১৫০ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে ৫ হাজার মানুষ। এই ভাইরাস মোকাবেলায় সরকার নানা উদ্যোগ নিয়েছে।






প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25097 জন