গাজীপুরে বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ
Published : Wednesday, 22 April, 2020 at 12:00 AM, Update: 21.04.2020 9:30:19 PM
গাজীপুরে বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের সড়ক অবরোধদিনকাল রিপোর্ট
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ছয়দানা এলাকায় গতকাল মঙ্গলবার মার্চ মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে বিােভ করেছেন পোশাক কারখানার শ্রমিকেরা। এ সময়ে বিুব্ধ শ্রমিকেরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবরোধ সৃষ্টি করেন। প্রায় দুই ঘণ্টা পর পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। শিল্প পুলিশ ও কারখানার শ্রমিকেরা জানায়, গাজীপুরের ছয়দানা এলাকায় অমিতি সোয়েটার্স লিমিটেড নামে একটি তৈরি পোশাকের কারখানা আছে। ওই কারখানার শ্রমিকদের মার্চ মাসের বেতন ১২ এপ্রিল পরিশোধ করার কথা ছিল। ওই দিন শ্রমিকেরা কারখানায় গিয়ে দেখেন, কোনো কর্মকর্তা অফিসে আসেননি। কারখানা মূল ফটকে তালা ঝুলছে। এরপর গতকাল বেতন দেয়ার কথা থাকলেও কোনো কর্মকর্তা কারখানায় আসেননি। শ্রমিকদের বেতনও দেওয়া হবে না। পরে শ্রমিকেরা বেতনের দাবিতে বিােভ শুরু করেন। একপর্যায়ে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শ্রমিকেরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে অবরোধ সৃষ্টি করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় বেতন পরিশোধের ব্যাপারে মালিক পরে সঙ্গে শ্রমিকদের আলোচনার আশ্বাস দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয় পুলিশ। তবে শ্রমিকেরা দুপুর দেড়টা পর্যন্ত কারখানার সামনে অবস্থান করেন। অবরোধের কারণে প্রায় দুই ঘণ্টা সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। এতে সড়কের দুই দিকে মালবাহী ট্রাকের ও ব্যক্তিগত গাড়ির জট লেগে যায়। অমিতি সোয়েটার্স লিমিটেড কারখানার শ্রমিক সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘করোনাভাইরাস আর লকডাউন আমাদের কোনো কিছু আর মানছে না। ভাড়িওয়ালা ঘর ভাড়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন। দোকান থেকে বাকি নেয়া হয়েছে, তাঁরা টাকা চাইছেন। মরণ ছাড়া আর কোনো উপায় দেখছি না। শ্রমিকদের কেউ সাহায্য সহযোগিতা করছে না। মোস্তাফিজুর রহমান নামের আরেক শ্রমিক বলেন, ‘১২ এপ্রিল বেতন দেওয়ার কথা ছিল। আজ পর্যন্ত বেতন হলো না। রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছি। গাজীপুর শিল্প পুলিশের পরিদর্শক রেজ্জাকুল হায়দার বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গাজীপুরের অধিকাংশ কারখানা ছুটি ঘোষণা করে উৎপাদন বন্ধ রেখেছে কর্তৃপ। হঠাৎ করে ছুটি ঘোষণা করায় নানা জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। এতে জেলার বেশ কিছু কারখানার শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাসহ পাওনাদি পরিশোধ করতে পারেনি কর্তৃপ। এসব কারখানার শ্রমিকেরা গত কয়েক দিন ধরেই বেতনসহ তাদের পাওনার জন্য কর্তৃপরে কাছে দাবি জানিয়ে আসছেন।







প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25097 জন