চট্টগ্রামে ত্রাণের দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ
Published : Sunday, 19 April, 2020 at 12:00 AM, Update: 18.04.2020 10:10:48 PM
চট্টগ্রামে ত্রাণের দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের সড়ক অবরোধদিনকাল রিপোর্ট
চট্টগ্রামে ত্রাণের জন্য সড়ক অবরোধ করে বিােভ করেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। গতকাল শনিবার সকাল নগরীর আগ্রাবাদের বড়পুল মোড়ে অবস্থান নেয় কয়েকশ পরিবহন শ্রমিক। বিােভ চলে কয়েক ঘণ্টা। এ সময় কোনো ধরনের গাড়ি চলাচল করতে দেয়নি তারা। ফলে দীর্ঘ জট লেগে যায় অনেক পণ্য পরিবহন গাড়ির। শ্রমিদের অভিযোগ, কয়েকদিন আগে পরিবহন শ্রমিকদের একটি প ত্রাণ দেয়ার কথা বলে ১০০ টাকা করে নেয় তাদের কাছ থেকে। তবে আজকে ত্রাণ দেয়ার কথা থাকলেও দেয়া হয়নি। ত্রাণের জন্য ধামরাইয়ে অসহায় ও কর্মহীনদের বিােভ : প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ঢাকার ধামরাইয়ে হাজার হাজার মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে রিকশা, অটোভ্যান, দিন মজুরসহ বিভিন্ন নিম্ন আয়ের মানুষেরা খাবারের অভাবে অসহায় হয়ে পড়েছে। গত দুইদিন ধরে উপজেলার সুয়াপুর ইউনিয়নের কয়েকশ অসহায় ও কর্মহীন নারী-পুরুষ ঘরে খাবার না থাকায় রাস্তায় নেমে আসে। এ সময় তারা ত্রাণের দাবিতে সুয়াপুর ঈদগাহ জামে মসজিদ মাঠে জড়ো হয়ে বিােভ করেন।
তারা জানান, ুদার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে তারা আজ রাস্তায়। তাদের দাবি সরকার প্রতিটি নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্যে সামগ্রী দিচ্ছে তাহলে আমাদেরটা কোথায়। এ বিষয়ে ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল হক বলেন, সরকারের নিদের্শনা অনুযায়ী তারা সরকারি ত্রাণ পাওয়া উপযোগী হলে তাদের তালিকা আমার কাছে দিলে দ্রুতই আমি ত্রাণ পৌঁছে দিব।
নারায়ণগঞ্জ : দুই মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে নারায়ণগঞ্জে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অবরোধ করেছে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। নগরীর চাষাঢ়া বিজয়স্তম্ভ চত্বরে আজ শনিবার সকাল ৯টা থেকে দুই ঘণ্টাব্যাপী এই অবরোধ কর্মসূচি পালন করে তারা। পরে পুলিশ এসে তাদের সরিয়ে দেয়। অবরোধকারী শ্রমিকরা জানায়, ফতুল্লার টাগারপার এলাকায় ডিডিএল গার্মেন্টসে প্রায় ২৫০ জন শ্রমিক কাজ করে থাকে। তাদের মার্চ ও এপ্রিল মাসের বেতন না দিয়ে কারখানা লকডাউন করা হয়েছে। আর শ্রমিকরা পড়েছে আর্থিক সংকটে। তারা ঘর ভাড়া দিতে পারছে না। চরম সংকটে পড়েছে খাদ্যদ্রব্যের। আবার সামনে আসছে রমজান মাস। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে শ্রমিকরা এখন দিশেহারা। তাই অবিল¤ে॥^ বেতন পরিশোধ করার জোর দাবি জানায় তারা। বেলা ১১টার দিকে কোনো রকম আশ্বাস ছাড়াই পুলিশ এসে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয় শ্রমিকদের। পরে তারা শহীদ মিনার চত্বরে গিয়ে বসে থাকে।
রংপুর : টিসিবি পণ্য বিক্রি ও খাদ্যের দাবিতে রংপুর-কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট সড়ক অবরোধ করে বিােভ করেছে এলাকার শত শত কর্মহীন মানুষ। শনিবার সকালে রংপুর নগরীর সরেয়াতল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রায় দুই ঘণ্টা সড়কে সকল যান চলাচল বন্ধ ছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ঘটনাস্থলে এসে খাদ্য সরবরাহ করার আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় বিােভকারীরা। বিােভকারীরা জানান, নগরীর ৩৩ ন¤॥^র ওয়ার্ডের শত শত মানুষ কাজ ও খাদ্যের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ শুরু করে। ২৫ দিন ধরে কর্মহীন অবস্থায় রয়েছে তারা। কাজ না থাকায় পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে মানবেতর ভাবে দিন কাটছে তাদের। তাদের কোন খাদ্য সাহায্য দেয়া হয়নি। খবর পেয়ে মাহিগঞ্জ থানার ওসি আতারুজ্জামান নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে এসে বিােভকারীদের সাথে কথা বলেন। তাদের দাবি টিসিবির পণ্য বিক্রির ব্যবস্থা ও খাদ্য সরবরাহ করতে হবে। মাহিগঞ্জ থানার ওসি আতারুজ্জামান জানান, আমরা তাদের দুই দাবিই মেনে নিয়েছি। জরুরী ভিত্তিতে তাদের খাদ্য সরবরাহ করার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে এবং সেই সাথে টিসিবি পণ্য বিক্রি করার আশ্বাস দেয়া হয়েছে।
ধামরাই: প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ঢাকার ধামরাইয়ে হাজার হাজার মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে রিকশা অটোভ্যান, দিন মজুরসহ বিভিন্ন নিম্ন আয়ের মানুষেরা খাবারের অভাবে অসহায় হয়ে পড়েছে। গত দুইদিন ধরে উপজেলার সুয়াপুর ইউনিয়নের কয়েক’শ অসহায় ও কর্মহীন নারী-পুরুষ ঘরে খাবার না থাকায় রাস্তায় নেমে আসে। এসময় তারা ত্রাণের দাবিতে  সুয়াপুর ঈদগা জামে মসজিদ মাঠে জড়ো হয়ে বিােভ করেন। তারা জানান, ুদার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে তারা আজ রাস্তায়। তাদের দাবি সরকার প্রতিটি নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্যে সামগ্রী দিচ্ছে তাহলে আমাদেরটা কোথায়। এ বিষয়ে ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল হক বলেন, সরকারের নিদের্শনা অনুযায়ী তারা সরকারি ত্রাণ পাওয়া উপযোগী হলে তাদের তালিকা আমার কাছে দিলে দ্রুতই আমি ত্রাণ পৌঁছে দিব।
মধুপুর (টাঙ্গাইল) : করোনার প্রাদুর্ভাবে সৃষ্ট দুর্যোগে সরকারি ত্রাণের দাবিতে টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলায় আলোকদিয়া ইউনিয়নে সড়ক অবরোধ করে বিােভ করেছেন কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষ। শনিবার (১৮ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সোয়া ২টা পর্যন্ত টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের মধুপুর উপজেলার গাংগাইর বাজারে অবরোধ করে এ বিােভ হয়। এতে ওই ইউনিয়নের বেকারকোণা এলাকার শতাধিক নারী-পুরুষ অংশ নেয়।   পথচারী মুক্তার হোসেন, স্থানীয় ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর হোসেন, স্থানীয় তরুণ সবুজসহ অনেকে গণমাধ্যমকে জানান, করোনার কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে অসহায়ত্বের কথা উল্লেখ করে দ্রুত ত্রাণ সহায়তার দাবি জানান বিােভকারীরা।  এদিকে খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহ কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফা জহুরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিােভকারীদের শান্ত করেন। তালিকায় তাদের নাম থাকলে কেন তারা ত্রাণ পেলো না তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান। আর তালিকায় না থাকলে তালিকা করে খাদ্য সহায়তা দেওয়ারও আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বিােভেকারীরা গণমাধ্যমকে জানান, করোনা থেকে বাঁচতে কাজকর্ম ছেড়ে তারা বসে আছেন। তাদের ঘরে খাবার শেষ হয়ে গেছে। তারা অভিযোগ করেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা তাদের কোনো খোঁজ রাখছেন না। তাই ুধার যন্ত্রণায় রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছেন। আলোকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবু সাইদ তালুকদার দুলাল  বলেন, সরকারিভাবে যে ত্রাণ পেয়েছি, পর্যায়ক্রমে সবার মধ্যে বিতরণ করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত তিন কিস্তিতে ৪৯৫ জনকে এ ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়েছে। বিােভকারীরা সবাই একসঙ্গে ত্রাণ চান, যা সম্ভব নয়। তাদের সবাইকে প্রাপ্তির ভিত্তিতে পর্যায়ক্রমে ত্রাণ সাহায্য দেওয়া হবে। কিন্তু, ট্রাকভর্তি চাল আসছে- এমন ভুয়া খবরে একটি মহলের ইন্ধনে কিছু লোক বিােভ করেছেন। ইউএনও আরিফা জহুরা বলেন, তালিকা করে খাদ্য সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দিলে অবরোধকারীরা অবরোধ তুলে ঘরে ফিরেছেন।














প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25113 জন