বিভিন্নস্থানে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ত্রাণ বিতরণ
Published : Monday, 13 April, 2020 at 12:00 AM, Update: 12.04.2020 9:26:20 PM
দিনকাল রিপোর্ট
বিশ^ব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে লকডাউনসহ জনজীবনে যে দুর্বিষহ অবস্থা বিরাজ করছে, এই দুর্যোগময় মুহূর্তে বাংলাদেশের নিরন্ন, দুস্থ ও নি¤œ আয়ের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে বিএনপি ও অঙ্গ, সহযোগী সংগঠন। গতকাল রবিবার দেশব্যাপী বিভিন্ন ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।
ঠাকুরগাঁও জেলা : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর তত্ত্বাবধানে বিএনপির জেলা সভাপতি মোঃ তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিন, বিএনপি নেতা ওবায়দুল্লাহ মাসুদ, শরীফ, মাহবুব হোসেন তুহিন, জাফরুল্লাহ ও নূরুন্নবী ত্রাণ বিতরণ করেন।
নবাবগঞ্জ-২ আসনের এমপি হাজী আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে ৫ হাজার মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপি : দাউদকান্দি, মেঘনা ও তিতাস উপজেলায় বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের তত্ত্বাবধানে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, মহিলা দলের সভাপতি মিসেস আফরোজা আব্বাস মতিঝিল, পল্টন, শাহজাহানপুর, খিলগাঁও, সবুজবাগ এলাকায় ইতোমধ্যে ৩০০০ দুস্থ পরিবারকে ত্রাণ সহযোগিতা প্রদান করেছেন। ঢাকা জেলা-বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বাবু গয়েশ^র চন্দ্র রায়ের তত্ত্বাবধানে বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এ্যাড. নিপুণ রায় কেরানীগঞ্জ দক্ষিণে ইতোমধ্যে ৭০০০ পরিবারকে ত্রাণ সামগ্রী দিয়েছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আমান উল্লাহ আমান তার নির্বাচনী এলাকায়, বিএনপি নেতা ডাঃ সালাহউদ্দিন বাবু’র নেতৃত্বে সাভারে, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাকের নেতৃত্বে দোহারে, বিএনপি নেতা তমিজ উদ্দিনের নেতৃত্বে ধামরায় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। নরসিংদী জেলা-বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খানের তত্ত্বাবধানে পলাশে, বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনের নেতৃত্বে সদর উপজেলায়, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েলের নেতৃত্বে মনোহরদীতে, মনজুর এলাহী ও সুলতান মোল্লার নেতৃত্বে শিবপুরে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী করোনা ভাইরাসের এই মহাদুর্যোগে বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর উদ্যোগে বিভিন্ন সময়ে নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে ও ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসাধারণের মাঝে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবানসহ বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ করেন। এছাড়া তিনি গরিব ও দুস্থ মানুষদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রীও বিতরণ করেন। বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ডাঃ এ জেড এম জাহিদ হোসেন করোনা ভাইরাসের মরণঘাতি ছোবল থেকে বাঁচতে বিভিন্ন সময়ে ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে করোনা আতঙ্কিত মানুষদের নিকট মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, গ্লাভস, পিপিই ও সাবানসহ বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। এছাড়া তাঁর উদ্যোগে গত ২৭ মার্চ ২০২০ হতে প্রতিদিন প্রায় ৫০ জন হতদরিদ্র মানুষের নিকট রান্না করা খাবার পৌঁছে দেয়া হচ্ছে যা চলমান থাকবে। এছাড়াও প্রফেসর ডাঃ জাহিদ ময়মনসিংহ মহানগর এবং দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ, বিরামপুর, ঘোড়াঘাট, হাকিমপুর উপজেলা ও পৌরসভা সমূহে স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সহায়তায় অসহায় শ্রমজীবী মানুষদের খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।
ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ড্যাব এর উদ্যোগে ঢাকা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গরিব ও দুস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশণের উদ্যোগে করোনা ভাইরাসের মহাদুর্যোগে অসহায় ছিন্নমূল মানুষদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চলমান আছে।
মুরাদ নগরে বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান কাজী শাহ মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদের সহযোগিতায় ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। চান্দিনায় বিএনপি নেতা আতিকুল আলমের তত্ত্বাবধানে ত্রাণ কার্যক্রম চলছে।
গাজীপুর : বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনের তত্ত্বাবধানে কালিগঞ্জে, বিএনপি নেতা মজিবুর রহমান, সায়েদুল ইসলাম বাবুল ও ভিপি ইব্রাহিম কালিয়াকৈরে, খান কাজী শহীদুল্লাহ শহীদ, শাহজাহান কবির, আক্তার মাষ্টার ও শাহাদাৎ হোসেন সবুজ শ্রীপুরে, রিয়াজুল হান্নান কাপাসিয়ায়, সোহাগ হোসেন, শওকত চেয়ারম্যান, সুমন সরকার ও সালাহউদ্দিন সরকার মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে ছিন্নমুল মানুষের মাঝে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।
রাজশাহী মহানগর যুবদল নেতা রিটনের নিজ উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ : রাজশাহী মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন আজ রোববার দুপুরের নিজ ওয়ার্ড নগরীর ১১নং ওয়ার্ডে নিজ উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। করোনা ভাইরাসে কর্মহীন হয়ে পড়া অত্র ওয়ার্ডের কারিগরপাড়া, কাদিরগঞ্জ, রাজারহাতা পানবর ও শীবতলা এলাকার দরিদ্র, অসহায় ও মধ্যবিত্ত ২০০ পরিবারের মধ্যে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি।
এসময়ে তিনি বলেন, দেশ এখন চরম সংকটময় সময় পার করছে। জনগণের কথা ভেবে কারো অনুদান ছাড়াই তিনি নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে বেশ কিছুদিন থেকে কর্মহীন অসহায়দের মধ্যে এই ধরনের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। বিএনপি ও বিএনপির চেয়ারপার্সন, তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যেন দ্রুত আরোগ্য লাভ করে দেশ ও দেশের জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করেত পারেন তার জন্য সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেন রিটন। সেইসাথে সকলকে ঘরে থাকা এবং প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাহিরে না যাওয়া এবং বার বার সাবান পানি দিয়ে হাত ধোয়ার জন্য পরার্মশ দেন তিনি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর যুবদলের সহ সাধারণ সম্পাদক রায়হান রেজা রাজ, সহ-দপ্তর সম্পাদক আরিফ, সহ-কোষাধ্যক্ষ জানে আলম রাসেল, সহ-শ্রমবিষয়ক সম্পাদক গোলাম নবী জেমি, বন বিষয়ক সম্পাদক রিপন, সহ-ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক সুমন দাস, বোয়ালিয়া থানা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক সালাউদ্দিন বিপ্লব, রাকিব হোসেন ও এ.এইচ.এম শফিক মাহমুদ তন্ময়, মহানগর যুবদেলর সদস্য বাপ্পি, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মীম, ছাত্রনেতা জনি ও প্লাবনসহ যুবদলের অন্যান্য নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল : করোনা ভাইরাসের দুর্যোগকালীন সময়ে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ঢাকা মহানগরসহ দেশব্যাপী বিভিন্ন এলাকা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।
মানিকগঞ্জ-বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আফরোজা খান রিতা, বিএনপি নেতা জিন্নাহ কবির, মিজানুর রহমান লিটন, মীর মানিকুজ্জামান, আনসুর রহমান জেলার বিভিন্ন উপজেলা ও পৌরসভায় দুস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন।
টাঙ্গাইল-বিএনপি নেতা লুৎফর রহমান খান আজাদ ঘাটাইলে, আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী মির্জাপুরে ত্রাণ কার্যকম চালিয়ে যাচ্ছেন।
মুন্সীগঞ্জ-বিএনপি’র স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু শ্রীনগরে, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আব্দুস সালাম আজাদ, বিএনপি নেতা শাহজাহান খান, বাদল হাওলাদার, হাবিবুর রহমান চাকলাদার, আতাউর রহমান, ইয়াসিন শেখ, হাসান উদ্দিন মোল্লা, চেয়ারম্যান নাদের খান, ওমর ফারুক অবাগ, আনিসুর রহমান শিকদার (আনিস), বাবুল ঢালী লৌহজংয়ে, সোহেল আহমেদ সিরাজদিখানে, জসিম উদ্দিন ও ওবায়দুর রহমান বকুল মীরকাদিমে এবং খান মনিরুল মনির তার নিজ এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করেন।
 মেহেরপুর জেলা :  সদর, মুজিবনগর-মাসুদ অরুন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
গাংনী-বিএনপি’র জেলা সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন ও জাভেদ মাসুদ মিল্টন এর নেতৃত্বে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
চুয়াডাঙ্গা জেলা : জেলা বিএনপি’র আহবায়ক বাবু খান সাহেব তার নির্বাচনী এলাকার (দর্শনা, জীবননগর, দামুরহুদা) ২ টি ইউনিয়নে অস্বচ্ছল পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এছাড়া, তিনি মোঃ শরীফুজ্জামান স্ব-স্ব নির্বাচনী এলাকার অস্বচ্ছল দলীয় নেতা-কর্মীদেরকে সাহায্য করছেন।
কুষ্টিয়া জেলা : জেলা বিএনপি’র সভাপতি সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী খোকসা-কুমারখালীতে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন
সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দীন তার নির্বাচনী এলাকায় (সদর) ৫০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটি সদস্য ফরিদা ইয়াসমিন তার নিজ এলাকা ভেড়ামারায় দুস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
জেলা যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দল শহরে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
ঝিনাইদহ জেলা : সদর উপজেলা, সদর পৌরসভা ও হরিনাকুন্ডু পৌরসভা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মশিউর রহমান এবং বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা মীর রবিউল ইসলাম লাবলু ঝিনাইদহ সদর ও পৌর এলাকায় খাদ্য সামগ্রী বিতরনের কার্যক্রম চালাচ্ছেন।
এ্যাড. এম এ মজিদ ও আব্দুল মজিদ বিশ্বাসের তত্ত্বাবধানে বিএনপি, অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের মাধ্যমে প্রায় ১৮০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।
কালিগঞ্জ উপজেলা : হামিদুল ইসলাম হামিদ ও সাইফুল ইসলাম ফিরোজ এর নেতৃত্বে দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে।
মহেশপুর : উপজেলা বিএনপি ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। এ্যাড. আসাদুজ্জামান) এর সহায়তায় শৈলকুপা উপজেলা বিএনপির মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা অব্যাহত রয়েছে।
মাগুরা জেলা : বাবু নিতাই রায় চৌধুরী তার নির্বাচনী এলাকায় (শালিখা, মোহাম্মাদপুর, দক্ষিণ মাগুরা) খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন।
এছাড়া মোহাম্মদপুর ও শ্রীপুর উপজেলা বিএনপিও তাদের স্ব-উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছে।
জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক খান সুজা সাহেবও মাগুরা সদরে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
জেলা যুবদলের সভাপতি এ্যাড. কল্লোল তার নিজ সংগঠনের মাধ্যমে দুস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
যশোর জেলা : শার্শা: বেনাপোল পৌর যুবদল বিভিন্ন ওয়ার্ডে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে।
স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা আলহাজ্ব মহসিন কবির শার্শা উপজেলা ও বেনাপোল পৌর এলাকার ৪০০০ অস্বচ্ছল পরিবারের মাঝে উপজেলা বিএনপি ও বেনাপোল পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন।
ঝিকরগাছা : বিভিন্ন ইউনিয়ন বিএনপি স্ব-উদ্যোগে কাজ করছে। কেন্দ্রীয় নেতা সাবিরা নাজমুল মুন্নী উপজেলা ও পৌর বিএনপির মাধ্যমে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন।
চৌগাছা : উপজেলা বিএনপির আহবায়ক জহুরুল ইসলাম, যুগ্ম-আহ্বায়ক ইউনুস আলী ও আব্দুস সালাম উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে ব্যাপক পরিসরে ত্রাণ বিতরণ করছেন।
সদর উপজেলা+যশোর পৌরসভা: অনিন্দ্য ইসলাম অমিতের তত্ত্ববধানে সদর উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের মধ্যে এখন পর্যন্ত ১২টি ইউনিয়নে এবং যশোর পৌর এলাকার ৯ টি ওয়ার্ড বিএনপির মাধ্যমে ২০০০ পরিবারের মধ্যে খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে জেলা, সদর উপজেলা ও পৌর বিএনপি সমন্বয় সাধন করছে।
এছাড়া জেলা বিএনপির প্রয়াত সভাপতি চৌধুরী শহিদুল ইসলাম নয়নের জ্যেষ্ঠ পুত্র রফিকুল ইসলাম চৌধুরী মুল্লুক চাঁদ যশোর পৌর এলাকায় অস্বচ্ছল বিএনপি পরিবারের মাঝে ত্রাণ ও আর্থিক সহায়তা করেছেন।
 জেলা ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, শ্রমিক দল ও তাঁতী দল তাদের সংগঠনের অস্বচ্ছল মানুষদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছে।
বাঘারপাড়া : বিচ্ছিন্নভাবে কিছু কিছু ইউনিয়ন ও ব্যক্তি (বিএনপি/ অঙ্গ সংগঠনের নেতা) খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন।
কেন্দ্রীয় নেতা ইঞ্জি. টি এস আইয়ুব উপজেলা ও পৌর বিএনপির মাধ্যমে ত্রাণ বিতরণের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।
অভয়নগর : অঙ্গ সহযোগী সংগঠন খাবার বিতরণ করেছে।
কেন্দ্রীয় নেতা ফারাজী মতিয়ার রহমান উপজেলা ও নওয়াপাড়া পৌর বিএনপির মাধ্যমে ত্রাণ বিতরনের কার্যক্রম অব্যাহত আছে।
মনিরামপুর : সাবেক ছাত্রনেতা ইফতেখার সেলিম অগ্নি উপজেলার ১৭টি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার ৯ টি ওয়ার্ড বিএনপি, অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের মাধ্যমে ব্যাপক পরিসরে (১০,০০০ পরিবারের মাঝে) ত্রাণ বিতরণ করছেন।
কেশবপুর : বিচ্ছিন্নভাবে কোন কোন নেতাকর্মী তার নিজ এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।
কেন্দ্রীয় নেতা আবুল হোসেন আজাদ উপজেলা বিএনপি ও আব্দুস সামাদ বিশ্বাস পৌর বিএনপির মাধ্যমে ত্রাণ বিতরণ করছেন।
নড়াইল জেলা :  বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর বিশ্বাসের উদ্যোগে নড়াইল-১ নির্বাচনী এলাকায় (নড়াগাতি থানা+কালিয়া উপজেলা+ কালিয়া পৌর+ সদরের ৫ ইউনিয়ন) এখন পর্যন্ত ২৫০০ পরিবারের মধ্যে খাদ্য বিতরণ করা হয়েছে।
এছাড়া নড়াইল সদর, লোহাগড়া উপজেলা ও পৌর এলাকায় বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ত্রাণ বিতরণ করেছে।
খুলনা মহানগর :  সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মন্জু এবং বিএনপি নেতা শফিকুল আলম তুহিন বিভিন্ন এলাকায় গরিব ও দুস্থ মানুষদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা, উদীয়মান তরুণ বিএনপি নেতা আলহাজ্ব রকিবুল ইসলাম বকুল তার নির্বাচনী আসন-খুলনা-৩ এর তিন থানার ১৫টি ওয়ার্ড ও ২টি ইউনিয়নের সকল এলাকা ও ধর্মীয় উপাসনালয়ে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসাধারণের মাঝে জীবাণু নাশক স্প্রে, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেছেন। তিনি লকডাউনের শুরু থেকেই তিন থানার দুস্থ, অসহায়, ছিন্নমূল ও খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ চলমান রেখেছেন। আলহাজ্ব রকিবুল ইসলাম বকুলের পৃষ্ঠপোষকতায় ইতোমধ্যেই ছাত্রদল, যুবদল, সেচ্ছাসেবক দল এবং তিন থানা বিএনপির নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন এলাকার প্রায় দুই হাজার হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে।
খুলনা জেলা :  বিএনপি নেতা আজিজুল বারী হেলাল রুপসা, তেরখাদা ও দীঘলিয়া উপজেলা বিএনপির মাধ্যমে প্রায় ২৫০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
বিএনপি নেতা আমির এজাজ খান তার নির্বাচনী এলাকায় (দাকোপ+ বটিয়াঘাটা) খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
জেলা বিএনপির ব্যবস্থাপনায় রুপসা, কয়রা ও ডুমুরিয়াতে প্রায় ১০০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ফুলতলার বিভিন্ন ইউনিয়ন বিএনপিও স্ব-উদ্যোগ ত্রাণ বিতরণ করেছে।
বাগেরহাট জেলা : ইঞ্জি. মাসুদ রানা তার নির্বাচনী এলাকায় (মোল্লারহাট, ফকিরহাট, চিতলমারী) ১৫০ পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন।
বিএনপি নেতা কাজী খায়রুজ্জামান শিপন তার নির্বাচনী এলাকায় (বাগেরহাট- ০৪: শরনখোলা, মোড়েলগঞ্জ) পাঁচ শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
জেলা বিএনপির সদস্য মনিরুল হক ফারাজী শরনখোলা ও মোড়লগঞ্জ উপজেলার দুই শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
লায়ন ড. ফরিদুল ইসলাম তার নির্বাচনী এলাকায় (বাগেরহাট-০৩: রামপাল, মোংলা) ৫৬২ পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন। সদর উপজেলায় পৃথকভাবে ইঞ্জি. আকরাম হোসেন তালিম দুই শতাধিক পরিবার, সৈয়দ নাসির আহমেদ মালেক দুই শতাধিক পরিবার, এ্যাড, শরীফ মোস্তফা জামান লিটু ৩০ পরিবার ও জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি লিয়াকত সর্দার তিন শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
বরিশাল বিভাগের ত্রাণ বিতরণ:
বরিশাল জেলার (উজিরপুর-বানারীপাড়া) উপজেলায় সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টুর তত্ত্বাবধানে ত্রাণ বিতরণ  কার্যক্রম চলছে।
ঝালকাঠি জেলায় মন্টু ও নুপুরের নেতৃত্বে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের চলছে। ভোলা জেলায় মোশারফ হোসেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে তার ছেলে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন।
বরগুনা জেলা বিএনপির তত্ত্বাবধানে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলছে।
পিরোজপুর জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন সদর থানায়, মঠবাড়িয়ায় দুলাল, পিরোজপুর সদরে ছরোয়ার, কাউখালীতে আহসান উল্লাহ হাসান, নাজিরপুরে আনোয়ার হোসেন পলাশ এদের তত্ত্বাবধানে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলছে।
শিবচরে গরিব-অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষের মাঝে যুবদলের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি:
শিবচরে গরিব-অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষের মাঝে শিবচর উপজেলা যুবদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন মৃধা ৫ শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। গতকাল ১২ এপ্রিল (রবিবার) সকালে শিবচর উপজেলার সন্যাসীরচর ইউনিয়নের সন্যাসীরচর গ্রামের জসিম উদ্দিন মৃধার নিজ বাড়িতে দুস্থ:অসহায়, হতদরিদ্র ও খেটে-খাওয়া মানুষের মাঝে জনপ্রতি ১০ কেজি চাল ১ কেজি ডাল, ১ কেজি তেল, ২ কেজি আলু ও ১টি সাবান বিতরণ করেন। এসময় যুবদল নেতা অনিক, লিয়াকত, জুলহাস মোল্লা, রেজাউল করিম রেজা, বাদশা মুন্সী, আলমগীর, মোস্তাক মোল্লা, ছাত্রদল নেতা শিপন মোল্লা, সোহেল, ইমারাত ও আসিফসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে উক্ত ত্রান বিতরণ কর্মসূচীতে অংশ নেন। যুবদলের পক্ষ থেকে শিবচর উপজেলার বিভিন্ন যায়গায় এ ত্রান কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান উপজেলা যুবদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, প্রাণঘাতী (কভিড ১৯) প্রতিরোধে সারাদেশে চলছে মহামারী, করোনা ভাইরাসে থমকে গেছে সাধারণ মানুষের আয় রোজগার। এতে সবচেয়ে বেশি কষ্টে আছে সমাজের নিম্নআয়ের খেটে-খাওয়া মানুষ। কর্মহীন এসব মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করছি। এসময় তিনি খাদ্যসামগ্রী নিতে আসা সকলকে করোনা ভাইরাসের কারনে নিরাপদ দুরত্ব বজায় রেখে অতিপ্রয়োজনীয় কারন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের না হওয়া, মাস্ক ব্যবহার করা ও নিয়মিতভাবে সাবান বা হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করাসহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে আহ্বান জানান। সমাজের বিত্তবানদের প্রতি এসব ছিন্নমূল ও অসহায় মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান উপজেলা যুবদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন মৃধা। বিশেষ দ্রষ্টব্য, যারা লজ্জায় ত্রান নিতে আসতে পারেননি তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রান সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হবে।
পটুয়াখালী জেলা সদরে বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন চৌধুরী, মির্জাগঞ্জ উপজেলায় শাহাব উদ্দিন নান্নু’র তত্ত্বাবধানে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলছে।
রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এবং সাবেক এমপি জনাব আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম রাজবাড়ী জেলা বিএনপি আহ্বায়ক কমিটির সমন্বয়ে এবং কখনো কখনো ব্যাক্তিগত ভাবে প্রথমে রাজবাড়ী পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে (পাঁচ কেজি করে চাউল, দুই কেজি করে ডাউল, আলু, লবন ও তেল) ত্রাণ হিসাবে বিতরণ করেছেন এবং পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরণ করে যাচ্ছেন।
রাজবাড়ী জেলা বিএনপি আহ্বায়ক কমিটির সমন্বয়ে রাজবাড়ী জেলা বিএনপির অফিস থেকে রাজবাড়ী জেলা বিএনপি'র আহ্বায়ক কমিটির অন্যতম যুগ্ন আহ্বায়ক জনাব এডভোকেট আসলাম মিয়া ও এডভোকেট এম,এ খালেকের সহযোগিতায় এলাকার বহু অসহায় মানুষের মাঝে দশ কেজি করে চাউল বিতরণ করা হয়েছে।
গোয়ালন্দ উপজেলায় বিএনপি নেতা আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়াম, এডভোকেট আসলাম মিয়া এবং ইঞ্জিনিয়ার শাহীন ও গোয়ালন্দ পৌরসভার ওয়ার্ড কমিশনার নিজাম উদ্দিন শেখ আনুষ্ঠানিক ভাবে ত্রান বিতরণ করেছেন।
বালিয়াকান্দি উপজেলার বিএনপির সেক্রেটারী খন্দকার মশিউল আজম চুন্নু এবং সাংগঠনিক সম্পাদক আঃ ওহাব মন্ডল বালিয়াকান্দি উপজেলায় কয়েকশত অসহায় মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করেছেন। এ ছাড়াও রাজবাড়ী জেলা যুব দলের পক্ষ থেকে রেজাউল করিম পিন্টু এবং পাংশা ও কালুখালী উপজেলায় বিএনপি সহযোগী  সংগঠন  ছাত্রদল থেকে ত্রান বিতরণ করা হয়েছে।
শরীয়তপুরে বিএনপি’র উদ্যোগে দুলাল খান ( ১ নং যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ) মহিউদ্দিন বাদল (৩ নং যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক) নেতৃত্বে ৫০০ টি গরিব পরিবারের মধ্যে চাল-ডাল-তেল-লবণ-আলু ও সাবান বিতরণ করা হয়।
১.বগুড়া সদর, শেরপুর ও ধনুট:
বগুড়া জেলা বিএনপি'র আহবায়ক ও বগুড?া সদর -৬ আসনের জাতীয? সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ এর নেতৃত্বে, ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
২ সারিয়াকান্দি- সোনাতলা, আহসানুল তৈয়ব জাকির, সাবেক এমপি কাজী রফিক এর নেতৃত্বে ত্রান কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে ।
৩. শিবগঞ্জ,
 সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম এর নেতৃত্বে ত্রান কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
৪.শাজাহানপুর ও গাবতলী,
সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোরশেদ মিল্টন এর নেতৃত্বে ত্রাণ  কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
৫. কাহালু-নন্দীগ্রাম,
জাতীয় সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেনের নেতৃত্বে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
আদমদীঘি- দুপচাঁচিয়া
সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মহিত তালুকদার, দুপচাঁচিয়া পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর এর নেতৃত্বে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
যুবদল:
বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমান এর নির্দেশে বাংলাদশ জাতীয়তাবাদী যুবদল বৈশি^ক করোনা ভাইরাসে দেশের ক্ষতিগ্রস্ত ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে লকডাউনের শুরু থেকে বিভিন্ন সহায়তা ও ত্রান তৎপরতা  অব্যাহত রেখেছে।
এর মধ্যে যুবদল সভাপতি সাইফুল আলম নীরব ঢাকা ১২ আসনের তেজগাঁও, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল, রমনা ও রামপুরা এলাকায় অসহায় কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রান বিতরণ করেন, যা চলমান রয়েছে।
সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু টাংগাইল সদর, গোপালপুর ও ভূয়াপুর এলাকায় অসহায় কর্মহীন  মানুষের মাঝে ত্রান বিতরণ করেন, যা এখনো অব্যাহত রয়েছে।
নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল সভাপতি খোরশেদ এর নেতৃত্বে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান, বাড়িতে বাড়িতে ঔষধ পৌঁছানো, খাদ্য সরবরাহ, পাড়া মহল্লায় ভাইরাসরোধে স্প্রে ছিটানো হয়। সর্বোপরি করোনায় মৃত্যুবরণকারী লাশ দাফনের মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজও করে যাচ্ছে।
চট্টগ্রাম মহানগর যুবদল সভাপতি মোশারফ হোসেন দিপ্তী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সাহেদ এর নেতৃত্বে নগরীর বিভিন্ন স্থানে ভাইরাসরোধে স্প্রে করা, দরিদ্র ও কর্মহীন  মানষের মাঝে খাদ্য ও দৈনন্দিন ব্যবহার্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।
চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবদল সভাপতি হাসান জসিম ও সাধারণ সম্পাদক মুরাদ এর নেতৃত্বে জেলার বিভিন্ন ইউনিটে কর্মহীন দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ, মাক্স, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান, পাড়া মহল্লায় ঔষধ ছিটানোসহ নানা জনহিতকর কাজ অবাহত রয়েছে।
রাজশাহী জেলা যুবদল সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানি সুমন ও সাধারণ  সম্পাদক  শফিকু রহমান সমাপ্ত,  মহানগর সভাপতি সুইট ও সাধারণ সম্পাদক রিটনের নেতৃত্বে জেলা ও মহানগরীর সবকয়টি ইউনিটের সাধারণ মানষের মাঝে মাক্স, স্যানিটাইজার, বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া ও এন্ট্রি ভাইরাস স্প্রে ছিটানোসহ নানা ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।
খুলনা জেলা যুবদল সভাপতি শামীম কবির ও সাধারণ সম্পাদক রুবায়েত, মহানগর সভাপতি মাহবুব হাসান পিয়ারু ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা সাগরের নেতৃত্বে জেলা ও মহানগরের বিভিন্ন এলাকার বিপন্ন মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরণ, হাতধোয়া সামগ্রী বিতরণ, এন্ট্রি ভাইরাস স্প্রে করাসহ নানা সহযোগীতা অব্যাহত রয়েছে।
বরিশাল বিভাগের বরিশাল দক্ষিণ জেলা যুবদল সভাপতি এড. পারভেজ আলম বিপ্লব ও সাধারণ সম্পাদক এড. তছলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. হাফিজ আহম্মেদ বাবলু, মহানগরী সভাপতি এড. আক্তারুজ্জামন শামীম, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ হাসান মামুন ও ববিশাল উত্তর জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ আলম হাওলাদার এর নেতৃত্বে দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের মাঝে বিভিন্ন রকম ত্রান তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।
ঢাকা মহানগর উত্তর এর সভাপতি এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহীন এর নেতৃত্বে ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন এলাকায় ত্রান তৎপরতা অব্যাহত আছে। এছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তরের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দিন জুয়েল এর নেতৃত্বে গুলশান এলাকার বিভিন্ন  জায়গায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
রংপুর জেলা সভাপতি নাজমুল আলম নাজু ও সাধারণ  সম্পাদক সামসুল হক ঝন্টু, মহানগর সভাপতি মাহফুজ উন নবী ডন ও সাধারণ সম্পাদক লিটন পারভেজ এর নেতৃত্বে কর্মহীন ও খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে ত্রান বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।
বগুড়া জেলা যুবদলের আহবায়ক খাদেমুল ইসলাম খাদেমের নেতৃত্বে জেলার বিভিন্ন এলাকায় ত্রান তৎপরতা  অব্যাহত রয়েছে।
গাজীপুর জেলা সভাপতি মনির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জসিম ভাট, মহানগর সভাপতি প্রভাষক বশির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানার নেতৃত্বে দৈনন্দিন খেটে খাওয়া ও সমাজে পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠীর মাঝে বিভিন্ন  রকম সহায়তা অব্যাহত আছে এবং পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকবে।
ময়মনসিংহ মহানগর, সভাপতি মোজাম্মেল হক টুটু সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেন শাকিল, দক্ষিণ জেলা সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, সাধারণ সম্পাদক এড, দিদারুল আলম রাজু'র নেতৃত্বে জেলা ও মহানগরীর বিভিন্ন  এলাকায় ত্রান তৎপরতা  অব্যাহত আছে।
টাংগাইল জেলা যুবদল আহায়ক আশ্রাফ পাহেলি ও যুগ্ম আহবায়ক খন্দকার রাশেদুল ইসলাম এর নেতৃত্বে জেলায়  ত্রাণ তৎপরতা অবাহত রয়েছে।
কিশোরগঞ্জ জেলা যুবদল সভাপতি জিএস শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক সুমন এর নেতৃত্বে জেলার বিভিন্ন ইউনিটে দরিদ্রদের মাঝে বিভিন্ন সহায়তা প্রদান করা হয়।
ঢাকা জেলা যুবদল সাংগঠনিক সম্পাদক আইয়ুব এর নেতৃত্বে জেলার বিভিন্ন এলাকায়  ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়।
এছাড়া চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা, কক্সবাজার, ফেনী, নোয়াখালী, লক্ষীপুর, কুমিল্লা সিলেট জেলা ও মহানগর,  হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ, ময়মনসিংহ উত্তর জেলা, নরসিংদী, নেত্রকোনা, জয়পুরহাট, ফরিদপুর, চাঁদপুর, শরীয়তপুর, পাবনা, যশোর, সিরাজগঞ্জ, কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা, পটুয়াখালী, ভোলা, চাপাঁইনবাবগঞ্জ, মাদারীপুর সহ দেশের সকল জেলায় যুবদলের ত্রাণ তৎপরতা চলমান রয়েছে।
জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল
গত ৩০ মার্চ ২০২০ তারিখ হতে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যেগে নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে ছিন্নমুল মানুষদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়। ঢাকা মহানগর উত্তর, চট্টগ্রাম মহানগর, রাজশাহী মহানগর, নারায়ণগঞ্জ মহানগর, গাজীপুর মহানগর, বরিশাল মহানগর, সিলেট মহানগর, রংপুর মহানগর, খুলনা মহানগর এবং ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, গাজীপুর, মানিকগঞ্জ, নরসিংদী, কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ দক্ষিণ, নেত্রকোণা, ফরিদপুর, বরিশাল, ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, চট্টগ্রাম উত্তর, চট্টগ্রাম দক্ষিণ, কক্সবাজার, নোয়াখালী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, রাজশাহী, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, মাগুরা, খুলনা, ঠাকুরগাঁও, কুষ্টিয়া, গোপালগঞ্জ, যশোর, ফেনী, খাগড়াছড়ি, জয়পুরহাট ও ঝিনাইদহ জেলায় ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। সংগঠনের উদ্যোগে ঢাকা মহানগরসহ দেশব্যাপী বিভিন্ন থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়নে দুস্থ ও ছিন্নমুল মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে।
সিরাজগঞ্জে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর তত্বাবধানে সিরাজগঞ্জ সদর, রায়গঞ্জ ও তাড়াশে বিএনপির ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বিএনপির চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী এ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস এর নেতৃত্বে পাবনা সদর, কেন্দ্রিয় নেতা সেলিম রেজা হাবিব এর নেতৃত্বে সুজানগর ও বেড়া উপজেলায়, ফজলার ফকির এর নেতৃত্বে বেড়া পৌরসভায়, মজিবর রহমান ও রাজিউল হাসান বাবুর নেতৃত্বে ভাংগুড়া উপজেলায়, আনোয়ারুল ইসলাম ও হীরার নেতৃত্বে চাটমোহর উপজেলায় এবং চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব ও  জাকারিয়া পিন্টুর ছোট ভাই যুবনেতা জুয়েলের তত্বাবধানে ঈশ্বরদী উপজেলায় বিএনপির ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। রাজশাহী মহানগরে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক মেয়র জনাব মিজানুর রহমান মিনু, সাবেক মেয়র ও মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিলন এর নেতৃত্বে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। আবু সাঈদ চাঁদ এর নেতৃত্বে চারঘাট ও বাঘা উপজেলা এবং কাঁটাখালি পৌরসভায় ত্রাণ বিতরণ এর কাজ চলছে। তানোরে পৌর মেয়র মিজান, নওহাটায় মকবুল হোসেন, বাগমারায় ডি.এম. জিয়াউর রহমান, পুঠিয়া পৌরসভায় আল মামুন খান এবং দুর্গাপুরে ওয়াহেদ মোল্লা ও সাকলায়েন চেয়ারম্যান এর নেতৃত্বে বিএনপির ত্রাণ কার্যক্রম চলছে। জয়পুরহাট জেলায় বিএনপি নেতা ফজলুর রহমান, মমতাজ মন্ডল ও নাফিজুর রহমান পলাশ এর নেতৃত্বে সদর উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ চলছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জে হারুনুর রশিদ হারুন এমপির তত্বাবধানে, নওগাঁ সদর উপজেলায় জেলা বিএনপি ও মেয়র নাজমুল হক সনি’র নেতৃত্বে এবং নাটোর জেলা বিএনপি জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ এর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।  
চাঁদপুর জেলা : জেলা বিএনপি’র আহবায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক এর তত্ত্বাবধানে চাঁদপুর সদর ও হাইমচড় উপজেলার কর্মহীন ও অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  করা হয়।
বিএনপি নেতা ইঞ্জি: মোমিনুল হক ও ড. আলমগীর কবীরের তত্ত্বাবধানে হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি উপজেলায় অসহায় ও কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়।
বিএনপি নেতা মোশাররফ হোসেন ও ইঞ্জি: মানিক এর তত্ত্বাবধানে কচুয়া উপজেলায় কর্মহীন ও অসহায় মানুষের  মাঝে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়।
বিএনপি  নেতা হান্নান ও লায়ন হারুণ এর তত্ত্বাবধানে ফরিদগঞ্জ উপজেলায় কর্মহীন ও অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়।
বিএনপি নেতা ড. জালাল, তানবীর হুদা ও শুক্কুর পাটোয়ারীর তত্ত্বাবধানে মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলায় অসহায় ও কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী  বিতরণ করা হয়।




ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা : নবীনগর উপজেলা ও পৌরসভায় বিভিন্ন স্থানে বিএনপি' জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য তকদীর হোসেন মোঃ জসীম, সাবেক ছাত্রনেতা ছায়েদুল হক সাঈদ, নবীনগর উপজেলা বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদক এডঃ আনিসুর রহমান মঞ্জু’র তত্ত্বাবধানে ১০০০ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বন্টন করা হয়।
বিজয়নগর উপজেলাসহ ২০০০ পরিবারের নিকট খাদ্যসামগ্রী ও মাক্স  বন্টন করা হয় এব ংবিভিন্ন  রাস্তাঘাটে জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয়। এসময় জেলা বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন এর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ও পৌরসভার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে বিএনপি'র জাতীয় নির্বাহী কমিটির অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জি: খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামল, জেলা বিএনপি’র সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহিরুল হক খোকন জহির এর তত্ত্বাবধানে খেটে খাওয়া কর্মহীন অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন।
সরাইল/আশুগঞ্জ উপজেলায় বিএনপি'র চেয়ারপার্সন এর উপদেষ্টা উকিল আবদুস সাত্তার ভুঁইয়া এমপি,  বিএনপি'র জাতীয় নির্বাহী কমিটির আন্তর্জাতিক





প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25155 জন