এপ্রিল মাস খুবই ঝুঁকিপূর্ণ
দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু : নতুন শনাক্ত ৪১
Published : Wednesday, 8 April, 2020 at 12:00 AM, Update: 07.04.2020 11:47:49 PM
দিনকাল রিপোর্ট
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের জন্য চলতি মাস (এপ্রিল মাস) বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। মঙ্গলবার রাজধানীর  তেজগাঁওস্থ সিএমএইচডি (কেন্দ্রীয় ওষুধাগার) ভবনে জীপ গাড়ি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।
জাহিদ মালেক বলেন, আমরা এখন লকডাউন অবস্থায় আছি। বিদেশ থেকে যারা এসেছেন তাদের অনেকই সঙ্গরোধে (হোম কোয়ারেন্টাইন) ছিলেন, এখনও অনেকে আছেন। যথাযথ ব্যবস্থার কারণেই আমাদের দেশে করোনা পরিস্থিতি পৃথিবীর অনেক দেশের তুলনায় অনেক ভালো। তবে চলতি মাস আমাদের দেশের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূণ, তাই সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।
তিনি বলেন, করোনার সময়ে ৯ লাখ মানুষ বাইরে থেকে এসেছেন। তার পরেও আমরা ভালো আছি। এই মাসটা খুব ক্রিটিকাল, এই মাসে সাহসিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা মোকাবিলায় সকল পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঠিকভাবে দায়িত্বপালন করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিক আমাদের দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন। যেসব এলাকায় বাড়িতে করোনা রোগী আছে সেগুলোর দিকে বেশি করে লক্ষ্য রাখতে হবে। তিনি বলেন, আমরা টেস্টিং ল্যাব বাড়াচ্ছি। অল্প সময়ের মধ্যে ১৭/১৮ টি ল্যাব চালু করেছি। আগামীতে আরো ১০টি ল্যাব চালু করা হবে। উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা যারা আছেন তাদের খেয়াল রাখতে হবে টেস্টিং যেন ভালো হয়, আরো বেশি সংখ্যক টেস্টিং যেন হয়। বিশেষ করে যারা বিদেশ থেকে এসেছেন, আর তাদের আশপাশে যারা আছেন তাদের নমুনা সংগ্রহ করে নিকটস্থ ল্যাবে পাঠাবেন।
প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের ক্ষেত্রে এপ্রিল মাস ‘খুবই ক্রিটিক্যাল’ মন্তব্য করে যত বেশি সম্ভব নমুনা পরীক্ষা বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর তেজগাঁওয়ের সিএমএসডি-তে মাঠ পর্যায়ের চিকিৎসকদের মাঝে গাড়ি বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এখন পর্যন্ত আমাদের দেশে করোনা পরিস্থিতি পৃথিবীর যে কোনো দেশের তুলনায় সবচেয়ে ভালো। আমাদের এখানে ঘনবসতি; এছাড়া দেশে ফিরে এসেছে ৯ লাখ প্রবাসী। চিকিৎসক কর্মকর্তাদের সতর্ক করে তিনি বলেন, ‘এই এপ্রিল মাস খুবই ক্রিটিক্যাল। আপনারা পরিস্থিতি নজরদারি করবেন, সাহসিকতার সঙ্গে কাজ করবেন। সিভিল সার্জনসহ মাঠপর্যায়ের সব কর্মকর্তা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করবেন। জাহিদ মালেক বলেন, ‘কোথায় করোনার রোগী আছে, থাকতে পারে খোঁজ নেবেন। যারা বিদেশ থেকে এসেছে, তারাই বেশি করোনা ছড়িয়েছে। যেসব বাড়িতে বিদেশি এসেছে, তাদের আত্মীয়স্বজনদের বেশি পরীক্ষা করবেন।’ তিনি বলেন, ‘আমরা টেস্টিং (নমুনা পরীক্ষা) বাড়িয়েছি। মাত্র একটি ল্যাব ছিল। কয়েক দিনের মধ্যে ১৭-১৮টি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। আরও ১০টি ল্যাব স্থাপন করা হবে।’ স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যত বেশি সম্ভব পরীক্ষা করাবেন, তাহলে আমরা শনাক্ত করতে পারব, কোয়ারেন্টাইনে নিতে পারব। ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে বড় কাজ হলো সংক্রমণ রোধ করা।’




দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু : নতুন শনাক্ত ৪১ : বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৫ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৭ জন। এবং গত  ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৪১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট ১৬৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হলো বাংলাদেশে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে করোনা ভাইরাস নিয়ে নিয়মিত অনলাইন সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। এসময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, গেল ২৪ ঘণ্টায় মোট ৭৯২ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এছাড়া করোনা ভাইরাসের হটলাইনে ভাইরাস সম্পর্কিত কল এসেছে ৫৯ হাজার ৫৯৫টি। এদিকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৭৪ হাজার ৬৯৭ জন। আর এই ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ১৩ লাখ ৪৬ হাজার ৫৬৬ জনের শরীরে। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ লাখ ৭৮ হাজার ৬৯৫ জন। ভাইরাসটিতে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৩ লাখ ৬৭ হাজার ৪ জনের শরীরে। সেখানে মারা গেছেন ১০ হাজার ৮৭১ জন। স্পেনে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৩৬ হাজার ৬৭৫ জন এবং মারা গেছেন ১৩ হাজার ৩৪১ জন। ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৩২ হাজার ৪৪৭ জন এবং মারা গেছেন ১৬ হাজার ৫২৩ জন।







প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25174 জন