লকডাউনের কথা বলে চাঁদাবাজি পুলিশসহ ৩ জনকে গণপিটুনি
Published : Thursday, 2 April, 2020 at 12:00 AM, Update: 01.04.2020 10:34:55 PM
দিনকাল রিপোর্ট
চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড পুলিশের এসআই পরিচয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে গণহারে চাঁদাবাজির অভিযোগে এক পুলিশ কনস্টেবলসহ তিনজনকে আটক করে গণধোলাই দিয়েছে জনতা। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বড়কুমিরা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়। আটক পুলিশ সদস্য সোহেল রানা সিএমপির কনস্টেবল।
স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার সময় তিন যুবক একটি প্রাইভেটকারে উপজেলার কুমিরা বাজারে উপস্থিত হয়। তাদের মধ্যে একজন নিজেকে সীতাকুন্ড থানার এসআই পরিচয় দিয়ে লকডাউনের মধ্যে দোকান খোলার জন্য ব্যবসায়ীদের ধমকাতে থাকেন। তার প্যান্টের পাশে পিস্তলের বাক্স থাকায় তাকে সিভিল পুলিশ মনে করে ভয় পেয়ে যান ব্যবসায়ীরা। এই সুযোগে তিনি ডালমিয়া বাজার রোডের অন্তত ১২-১৫টি দোকান থেকে বিভিন্ন অংকের টাকা হাতিয়ে নিতে থাকেন। কয়েকজন দোকানি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে সোহেল রানা জোর করে তাদের ক্যাশ বাক্স থেকে টাকা লুটে নিতে থাকেন। এক পর্যায়ে স্থানীয় লোকজন তিনজনকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোর্শেদুল আলম চৌধুরী, ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আলাউদ্দিন গিয়ে তাদের উদ্ধার করেন।
পরে সীতাকুন্ড থানায় খবর দিলে ওসি ফিরোজ হোসেন মোল্লা, ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ সেখানে ছুটে যান। তারা তিনজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। আটক সোহেল রানা বর্তমানে দামপাড়া পুলিশ লাইনে আছেন। তার বাড়ি খাগড়াছড়ি। অন্য দুজনের মধ্যে একজন গাড়ির চালক ও আরেকজন সোর্স। এদিকে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে সীতাকুন্ড থানার ওসি ফোন ধরেননি। আর ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।






প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25261 জন