কেউ জানে না কতদিন স্থায়ী হবে করোনা : ম্যাক্রো
Published : Saturday, 21 March, 2020 at 12:00 AM, Update: 20.03.2020 10:55:52 PM
দিনকাল ডেস্ক
কেউ জানে না কতদিন স্থায়ী হবে করোনা ভাইরাস (কভিড-১৯)। বৃহস্পতিবার এমন মন্তব্য করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। বলেছেন, এই ভাইরাস মোকাবিলায় পশ্চিমা বিশ্বের অর্থনৈতিক কার্যক্রম নতুন করে ঢেলে সাজাতে হবে। প্যারিসে অবস্থিত পাস্তুর ইনস্টিটিউট পরিদর্শনে গিয়ে এসব বলেন তিনি। ইনস্টিটিউটটি ভাইরাসটির টিকা ও কার্যকরী চিকিৎসা পদ্ধতি আবিষ্কার করতে কাজ করছে।
ফরাসি প্রেসিডেন্ট বলেন, এই মুহূর্তে কেউই বলতে পারবে না, কতদিন ধরে আমাদের সামাজিক যোগাযোগ সীমিত রাখতে হবে। আমরা জানি না, ভাইরাসটির কত দফা সংক্রমণ আমাদের মোকাবিলা করতে হবে, সেটি কেমন আচরণ করবে বা আমরা সেটা কিভাবে সামলাবো।
করোনা ভাইরাস সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে বিশ্বজুড়ে সকল দেশই। কিন্তু গুটিকয়েক দেশ ব্যতীত সবখানেই এর ব্যাপক সংক্রমণ ঘটছে।
বিশ্বনেতাদের পদক্ষেপ সমালোচিত হচ্ছে। তবে কেউই ভাইরাসটি নিয়ে তথ্যের অপ্রতুলতার কথা এমন অকপটে স্বীকার করেননি। জি সেভেন নেতাদের মধ্যে প্রথম সরকারপ্রধান হিসেবে ম্যাক্রন খোলাখুলিভাবে জানালেন, ভাইরাসটি নিয়ে বিশ্বের কাছে তথ্যের ঘাটতি কতটুকু। বিশ্বের ওপর এর প্রভাব কতটা গাঢ় হবে, কেমন হবে অর্থনৈতিক প্রভাব?
ম্যাক্রন বলেন, আমরা একেবারে নতুন একটা সময় পার করছি। এই সময় আমাদের এমন সব প্রশ্ন করতে বাধ্য করছে যা আমরা আগে নিজেদের করিনি। যেমন, সরবরাহ ও উৎপাদনের ধারা নিয়ে।
করোনা ভাইরাসে চীন আক্রান্ত হওয়ার পর বৈশ্বিক সরবরাহ বিঘ্নিত হয়। এতে যে প্রভাব পড়েছে তা এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি বিশ্ব। এখন ইউরোপে ভাইরাসটি সয়লাব হয়েছে। করোনায় বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ইতালিতে। অন্যান্য ইউরোপীয় দেশেও অবস্থা বেগতিক। একের পর এক দেশ লকডাউন হচ্ছে। ব্যহত হচ্ছে কাজ, উৎপাদন, আমদানি, রপ্তানি। নেতারা তাদের জনগণকে বাড়িতে থাকার আহ্বান জানাচ্ছেন। অন্যদের সংস্পর্শে না যেতে বলছেন। এতে ভাইরাস সংক্রমণের হার কমানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। একইসঙ্গে থেমে যাচ্ছে জীবনযাত্রা।
ম্যাক্রন বলেন, আমাদের উৎপাদন অব্যাহত রাখতে হবে। দেশকে চলমান রাখতে হবে। আমরা আমাদের অভ্যাস পাল্টে ফেলবো, কিন্তু সবতো থেমে থাকতে পারে না। নিজেদের গুছিয়ে নিতে আমাদের সময় নিতে হবে। কোন কোন জিনিস খাপ খাইয়ে নেয়ার মতো তা বুঝতে সময় নিতে হবে।
বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে ফ্রান্সের শীর্ষ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্স করেন ম্যাক্রন। কনফারেন্সে ব্যবসায়ীদের দেশজুড়ে লকডাউনের চ্যালেঞ্জ সামলাতে নির্দেশ দেন। অর্থনীতি সচল রাখতে চেষ্টা চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন। কনফারেন্সের শুরুতে তিনি বলেন, আমাদের অবশ্যই নাগরিকদের দূরত্ব বজায় রাখতে বলতে হবে। একইসঙ্গে আমাদের অর্থনীতিও চালু রাখতে হবে। কেননা, অর্থনৈতিক কর্মকা- ছাড়া জীবন-যাপন করা অসম্ভব হয়ে পড়বে, বদ্ধ অবস্থাতেও। তিনি বলেন, আমাদের কাজ গুছিয়ে আনতে হবে। এমনভাবে কাজ করতে হবে যাতে নিজেদের মধ্যে সংস্পর্শ যত সম্ভব কম হয়। এখন নতুন নিয়ম চালু হয়েছে: যাদের পক্ষে বাড়িতে থাকা সম্ভব, তারা বাড়িতে থাকুন। যারা স্বল্প পরিসরে কাজ করতে পারছেন, তারা কাজ করুন। আমাদের সব নতুন করে সাজাতে হবে। যা পরিহার করা সম্ভব, আমরা পরিহার করবো। এটা পুরো সামাজিকতায় একটা পরিবর্তন, যেটা খুবই কঠিন। কিন্তু আমি জানি, এ ধরনের ত্যাগ খুবই কঠিন।  কিন্তু তাই বলে সবতো বন্ধ করা সম্ভব না।






প্রথম পাতা'র আরও খবর
অনলাইন জরিপ

করোনা আতঙ্কের মধ্যেও সংসদ উপনির্বাচন যুক্তিযুক্ত বলে মনে করেন?
 হ্যাঁ   না   মন্তব্য নেই
দিনকাল ই-পেপার
পুরনো সংখ্যা
আজকের মোট পাঠক
25086 জন